Wednesday , January 17 2018
Home / রাজনীতি / তানোরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে উত্তাপ

তানোরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে উত্তাপ

আলিফ হোসেন, তানোর:
রাজশাহীর তানোরে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের রাজনীতি হঠাৎ করেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। তৃণমূলের অভিমত, রাজনৈতিক কর্মসূচি ঘিরে আওয়ামী লীগ-যুবলীগ, ছাত্রলীগ-বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ অনেকটা মূখোমূখি অবস্থানে রয়েছে। আগামি ১০ জানুয়ারী বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের কর্মসূচি ঘিরে এই উত্তাপের সূত্রপাত। জানা গেছে, আগামি ১০ জানুয়ারী বুধবার বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্কন উপলক্ষে তানোরে আওয়ামী লীগ ও (সাবেক) ছাত্রলীগ নেতারা একই দিনে পৃথক পৃথক কর্মসূচি দিয়েছে। সূত্র জানায়, উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্দ্যোগে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও পথসভা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে, এদিকে ওই কর্মসূচিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, মুন্ডুমালা পৌর মেয়র ও এমপি মনোনয়ন প্রত্যাশী গোলাম রাব্বানী প্রায় ২০ হাজার লোক সমাগমের টার্গেট নিয়ে মুন্ডুমালা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিশাল জনসভা আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছেন, ওদিকে উপজেলা ছাত্রলীগের (সাবেক) সভাপতি রবিন সরকার তাঁর অনুসারি কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে গোল্লাপাড়া বাজারে পৃথক কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। ফলে আগামি ১০ জানুয়ারী বুধবার বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ঘিরে একই দিনে ক্ষমতাসীন দলের পৃথক পৃথক কর্মসূচির ঘোষণায় রাজনৈতিক অঙ্গন উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে।
এদিকে সবকিছু ছাপিয়ে আলোচনায় উঠে এসেছে গোলাম রাব্বানীর কর্মসূচি এই কর্মসূচির খবরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। এদিন তানোরের মুন্ডুমালা পৌরসভার মুন্ডুমালা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রায় ২০ হাজার লোক সমাগমের টার্গেট নিয়ে কর্মসূচি দেয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে তৃণমূলের নেতা ও কর্মী-সমর্থকদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। কর্মী-জনবান্ধব ও জননন্দিত রাজনৈতিক নেতা গোলাম রাব্বানীর শুধুমাত্র মুঠোফোনের আহবানে সাড়া দিয়ে নেতাকর্মীর মধ্যে সৃষ্টি হওয়া বিপুল-উৎসাহ উদ্দীপনা আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারকদের মধ্যেও ব্যাপক আলোচনার সূত্রপাত হয়েছে। স্থানীয় রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অভিমত, একজন রাজনৈতিক নেতা কতোটা রাজনৈতিক দূরদর্শীতাসম্পন্ন, কর্মী-জনবান্ধব ও জনপ্রিয়তা অর্জন করলে এমন হয় সেটার জ্বলন্ত প্রমাণ রাব্বানী। একটি রাজনৈতিক কর্মসূচি সফল করতে যখন অন্যরা লাখ লাখ টাকা ব্যয় করেও অধিকাংশক্ষেত্রে সফল হতে পারছে না, সেখানে গোলাম রাব্বানীর শুধুমাত্র মুঠোফোনের আহবানে সাড়া দিয়ে হাজারো নেতা ও কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে যে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার সৃষ্টি করেছে সেটা বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে অনেকটা বিরল। এদিকে গোলাম রাব্বানীর তৃণমূলে এমন জনপ্রিয়তা আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারকদেরও অবাক করেছে। ফলে আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারকদের রাব্বানির মনোনয়ন প্রত্যাশার বিষয়ে ফের নতুন করে ভাবতে বাধ্য করেছে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

Check Also

নির্বাচনকালীন সরকারে ‘বিএনপির জায়গা হবে না’: তোফায়েল

নিজস্ব প্রতিবেদক: এই সরকারই ‘নির্বাচনকালীন’ সরকার, এতে বিএনপির জায়গা হবে না বলে মন্তব্য করেছেন, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *