Thursday , January 18 2018
Home / লাইফস্টাইল / মডেলকে দেখে মডেলিংয়ে উৎসাহী

মডেলকে দেখে মডেলিংয়ে উৎসাহী

অনলাইন ডেস্ক:

আপনিও চাইলে মডেলিংয়ে ক্যারিয়ার গড়ে তুলতে পারেন। তবে এই ঈর্ষণীয় জায়গায় যেতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হবে। কারণ আমাদের দেশে সামগ্রিকভাবে মডেলিংকে একটি পেশা হিসেবে গণ্য করা হলেও এখনো খুব ভালো রোজগারের পথ তৈরি হয়নি। এ জন্য খুব কম মডেলই আছেন, যারা শুধু মডেলিং করে ভালোভাবে জীবনযাপন করতে পারছেন। তবে মডেলিংয়ের পাশাপাশি অভিনয়সহ নানা কাজের সুযোগ তো আছেই।
মডেল হওয়ার জন্য আবশ্যক
১. উচ্চতা (ছেলেদের জন্য ন্যূনতম ৫ ফুট ১০ ইঞ্চি আর মেয়েদের ৫ ফুট ৫-৬ ইঞ্চি)
২. কষ্ট করার মানসিকতা (মডেলিংয়ের নিয়মকানুন রপ্ত করার জন্য অনুশীলনের জন্য শারীরিক ও মানসিক পরিশ্রম)
৩. ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা (মডেলিংয়ে ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা না থাকলে এ পেশায় ভালো করা যাবে না)
৪. প্রতিনিয়ত শেখার মধ্যে থাকা (প্রতিনিয়ত নতুন নতুন পরিবেশ, ফ্যাশন ও মডেলদের সঙ্গে সমন্বয় করতে হয়, তাই শেখার মাধ্যমে নিজেকে প্রতিনিয়ত আপডেট রাখা না গেলে দীর্ঘদিন টিকে থাকা সম্ভব হবে না)
৫. নিজস্বতা তৈরি (অনেকেই কোনো একজন জনপ্রিয় মডেলকে দেখে মডেলিংয়ে উৎসাহী হয়। কিন্তু সেটা থাকতে হবে উৎসাহ পর্যন্তই। এরপর যখন প্র্যাকটিক্যালি কাজ করতে হবে, তখন ওই মডেলকে কপি করলে হারিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। তাই মডেল হতে হলে নিজস্ব একটা স্টাইল দাঁড় করাতে হবে)
এই পাঁচটি জিনিস নিজের মধ্যে ধারণ করতে পারলে ফ্যাশন সেন্স, নিজেকে রিপ্রেজেন্ট করার দক্ষতা বা লাস্যময়তা আপনিতেই তৈরি হবে।
মডেলিংয়ে আসতে
সাধারণত যারা মডেল হতে চান, তাঁদের ভালো কিছু ফটোসেশন করিয়ে সেই সঙ্গে চমৎকার একটি পোর্টফোলিও তৈরি করে বিভিন্ন বিজ্ঞাপনী সংস্থা, এজেন্সির অফিসে দিয়ে আসতে হয়। ছবি পছন্দ হলে কাজের জন্য ডেকে পাঠানো হয়। মডেলিংয়ের ওপর পড়াশোনা করে, হাতে-কলমে শিখে এলে এ পেশায় আসা সহজ হয়। এ জন্য দেশে চালু আছে বেশ কয়েকটি মডেলিংয়ের স্কুল।
জনপ্রিয় মডেল ও কোরিওগ্রাফার বুলবুল টুম্পা ও রুমা পরিচালিত স্কুল দুটি মানসম্মত শিক্ষার মাধ্যমে মডেল তৈরি করছে। বিভিন্ন মেয়াদে এই কোর্স হয়ে থাকে। ১০ বছর ধরে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ‘স্ন্যাপশট’ নামের একটি স্কুল চালাচ্ছেন মডেল বুলবুল টুম্পা। তাঁর এই স্কুলে তিন মাসের কোর্স করানো হয়। কোর্স ফি ১২ হাজার টাকা। এতে আচরণ, কথাবার্তা, হাঁটা-চলা, ফ্যাশন সেন্স, ফটোশুটের এক্সপ্রেশন শেখানো হয়।
কাজের ক্ষেত্র
মডেলিংয়ের কাজের ক্ষেত্র মূলত দুটি। একটি হল টেলিভিশন মিডিয়া আর অন্যটি প্রিন্ট মিডিয়া। জনপ্রিয় মডেল ও কোরিওগ্রাফার বুলবুল টুম্পা জানান, আমাদের দেশের মিডিয়াতে সিনেমা ও নাটকে এ রকম অনেক উদাহরণই আছে, যাঁদের অনেকে প্রথমে মডেলিং শুরু করেছেন অথচ এখন জনপ্রিয় অভিনেতা বা অভিনেত্রী। টুম্পা আরো জানান, তাঁর মডেলিং শেখানোর স্কুল ‘স্ন্যাপশট’ থেকে গ্রুমিং করে অনেকে মিডিয়ার নানা জায়গায় কাজ করছেন। যেমন স্টেজ বা টিভি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা, ফ্যাশনবিষয়ক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ভালো পদে চাকরি, পোশাক ডিজাইন করা, সংবাদ পাঠ ইত্যাদি।

Check Also

চুম্বন ধূমপানের থেকেও বেশি ক্ষতি

ডেস্ক রিপোর্ট: আদরের চুম্বনে এবার লাগাম পড়তে চলেছে। এমনই দাবি গবেষকদের। জানেন কি একটি চুম্বন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *