Wednesday , January 17 2018
Home / খেলাধুলা / ডাকের অপেক্ষায় আরিফুল-রাহীরা

ডাকের অপেক্ষায় আরিফুল-রাহীরা

 

স্পোর্টস রিপোর্টার |
জানুয়ারিতেই ফের শুরু হচ্ছে ক্রিকেট উত্তেজনা। এবার জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের শুরু হবে দৌড়-ঝাঁপ। শুরুতেই ৭ ম্যাচের ওয়ানডে ত্রিদেশীয় সিরিজ। যেখানে মাশরাফি বিন মুর্তজা বাহিনীর প্রতিপক্ষ হবে শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ে। এরপর লঙ্কার বিপক্ষে দ্বিপক্ষীয় টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের নেতৃত্ব দিবেন সাকিব আল হাসান। এই সিরিজে অদৃশ্য প্রতিপক্ষ হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশের সদ্য বিদায়ী লঙ্কান চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।

যে কারণে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি) এ সিরিজের চ্যালেঞ্জটা অন্যভাবেই দেখছে। তাই প্রতিটি সিরিজেই সেরা দল দিতেই  নেয়া হচ্ছে প্রস্তুতি। জাতীয় দলের তারকা ও নিয়মিত ক্রিকেটাররা ছাড়াও ক্যাম্পে ডাক পাবে সম্ভাবনাময়রা। জাতীয় ক্রিকেট লীগ (এনসিএল) ও বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) সেরা পারফরমারদের সুযোগ থাকবে সবচেয়ে বেশি। এর মধ্যে পেসার আবু জায়েদ রাহী, অলরাউন্ডার আরিফুল হক ও উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান জাকির হাসান ও স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপুর নাম শোনা যাচ্ছে বেশ জোরালোভাবেই। জানা গেছে, ৩২ সদস্যের প্রথমিক দল ঘোষণা হতে পারে আগামী রবি অথবা সোমবার। এ বিষয়ে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু দৈনিক মানবজমিনকে বলেন, ‘আমরা ২৩ তারিখের মধ্যে বোর্ডের কাছে প্রাথমিক দল জমা দেবো। সেদিন না হলেও তার পরদিন সেটি সংবাদ মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে।’
প্রাথমিক দলে বিপিএল ও এনসিএল’র পারফরমারদের সুযোগের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেননি প্রধান নির্বাচক। রাহী, আরিফুলদের সম্ভাবনা নিয়ে মিনহাজুল আবেদিন বলেন, ‘এখনো চূড়ান্ত হয়নি তালিকা। আমরা মিটিং করবো জাতীয় দলে বর্তমানদের ছাড়াও আরো কাদের প্রাথমিক দলে সুযোগ দিয়ে দেখা যায়। আমাদের প্রাথমিক দল এমনভাবে ঘোষণা করতে হবে যেখানে ওয়ানডে, টেস্ট ও টি- টোয়েন্টির সেরা পারফরমারই থাকে। অবশ্য সাম্প্রতিক সময়ে যারা ভালো করছে তাদের দিকেও আমাদের নজর আছে। তবে এখনই আমি নামগুলো বলতে চাইছি না।’ শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের সঙ্গে ঘরের মাঠে রবিন রাউন্ড লীগ পদ্ধতিতে ত্রিদেশীয় সিরিজে মুখোমুখি হবে টাইগাররা। এরপর লঙ্কার সঙ্গে দু’টি  সিরিজে দু’টি করে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ম্যাচ মাঠে নামবে সাকিব বাহিনী। এটি হবে সাকিবের দ্বিতীয় দফাতে টেস্ট দলের নেতৃত্বে চ্যালেঞ্জ। প্রথবার ৯ ম্যাচে নেতৃত্বে দিয়ে মাত্র একটি জয়ই উপহার দিতে পেরেছিলেন দেশকে। তার ব্যর্থতায় ২০১১ সালে নেতৃত্ব চলে যায় মুশফিকুর রহীমের হাতে। সাত বছরে মুশফিককে দেশের সেরা টেস্ট অধিনায়ক না বলে উপায় নেই। কিন্তু বিসিবি’র অসন্তোষের কারণে ৩৪ ম্যাচে ৮ জয় ও  ৯ ড্র উপহার দেয়া মুশফিককে হঠাৎ করেই নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে ফের সাকিবের হাতে তুলে দেয়া হয়। এখন দেখার বিষয় হাথুরুর দলের বিপক্ষে সাকিব প্রথম পরীক্ষাতে কতোটা ভালো ফল পান।
সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে খেলা ওয়ানডেতে ও টেস্ট দলে খুব একটা পরিবর্তন হয়তো আসবে না। দুই/একজন হয়তো পরিবর্তন হতে পারে। তবে টি-টোয়েন্টিতে নূতন মুখের সুযোগ আসতে পারে। এর মধ্যে বিপিএল-এ সাকিব আল হাসানের পর ১৮ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় সেরা বোলার হয়েছেন সিলেটের পেসার আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী। এছাড়াও ব্যাট হাতে লেজের দিকে দারুণ ব্যাট করে খুলনা টাইটান্সের আরেক ক্রিকেটার আরিফুল হকও আছেন নির্বাচকদের নজরে। সুযোগ আসতে পারে উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান জাকির হাসানেরও। বিপিএল-এ শেষের দিকে সুযোগ পেয়ে দারুণ খেলেছেন এ তরুণ। চাপের মুখেও নিজের প্রথম ম্যাচে দুর্দান্ত ফিফটি হাঁকিয়ে রাজশাহী কিংসকে জয় এনে দেন তিনি। সুযোগ আসতে পারে চ্যাম্পিয়ন রংপুরের স্পিনার নাজমুল ইমলাম অপুরও। ১০ ম্যাচে তিনি নিয়েছেন ১২ উইকেট। অন্যদিকে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়াদের মধ্যে ফিরতে পারেন আরেক উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন। রংপুরের হয়ে দারুণ ব্যাট করেছেন তিনি। ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে দারুণ বল করা তরুণ পেসার আবু হায়দার রনিরও জাতীয় দলে ফেরার সম্ভাবনা প্রবল। ১৩ ম্যাচে নিয়েছেন ১৫ উইকেট। বিপিএল’র চতুর্থ আসরে ইনজুরি আক্রান্ত  পেসার মোহাম্মদ শহীদ একবছর পর মাঠে ফিরেন। খেলেছেন এবার বিপিএল’র পঞ্চম আসরেও।  টেস্ট দলে এ পেসারকেও ফেরাতে পারেন নির্বাচকরা। এবার দল গঠনে কোন্‌দিকে বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে- এমন প্রশ্নের জবাবে নান্নু বলেন, ‘আমরা নিয়মিত পাফরমার ছাড়াও যোগ্যদেরই দলে রাখতে চাই। প্রাথমিক দল এমন হবে- যেখান থেকে তিন ফরমেটের জন্যই ভারসাম্যপূর্ণ ক্রিকেটার বেছে নেয়া যায়।’

Check Also

পারিশ্রমিক নিয়ে ক্রিকেটারদের অসন্তোষ

স্পোর্টস রিপোর্টার: একটা বছর যায়, নতুন বছর আসে। সবক্ষেত্রের পেশাজীবীই আশা করেন তার পারিশ্রমিক বাড়বে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *