Thursday , January 18 2018
Home / ঙ্ক্রাইম এক্সপ্রেস / শীতকালে শুষ্ক-নিষ্প্রাণ ত্বক মুক্তি পেতে খান এই খাবারগুলি

শীতকালে শুষ্ক-নিষ্প্রাণ ত্বক মুক্তি পেতে খান এই খাবারগুলি

অনলাই ডেস্কঃ

শীতকালে ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। কারণ, শীতকালের শুষ্ক আবহাওয়া ত্বকের আর্দ্রতা টেনে নেয়। ত্বককে করে তোলে নিষ্প্রাণ। শুষ্কতার সঙ্গী হয় কোঁচকানোভাব আর লালচে ত্বক। ময়েশ্চারাইজ়িং ক্রিম বা বডি লোশন ব্যবহারের পরও সবসময় এই শুষ্কভাব পুরোপুরি দূর হয় না। আসলে, এজন্য প্রয়োজন আভ্যন্তরিন পুষ্টি। আপনার খাদ্যতালিকার উপরও অনেকাংশে নির্ভর করে ত্বকের ধরন। জেনে নিন, শীতকালে কী কী খেলে আপনার ত্বক হবে প্রাণবন্ত-

কমলালেবু
শীতকালের মরসুমি ফল কমলালেবু। বছরের যেকোনও সময়ই মরসুমি ফল খেলে ত্বক সুস্থ থাকে। কমলালেবুতে থাকে ভিটামিন-C। এই ভিটামিন ত্বকের কোঁচকানোভাব আসতে দেয় না সহজে। গবেষণায় দেখা গেছে, যাদের খাদ্যতালিকায় ভিটামিন-C-যুক্ত খাবার বেশি থাকে, তাদের ত্বকে কোঁচকানোভাব অনেক কম দেখা যায়।

আমন্ড
আমন্ড ত্বকের জন্য খুব উপকারি। এতে ভিটামিন-E থাকে। যা ত্বকের কোশগুলিকে ক্ষতির হাত থেকে বাঁচায়। সেইসঙ্গে আমন্ডে থাকে ত্বকের জন্য প্রয়োজনীয় ফ্যাটি অ্যাসিড। এই ফ্যাটি অ্যাসিড ত্বককে ভিতর থেকে পুষ্টি ও আর্দ্রতা জোগায়। প্রতিদিন সকালে একমুঠো আমন্ড খেলে ত্বক থাকবে সুস্থ।

রসুন
রসুনের অনেক গুন। কখনও ব্যবহার হয় রান্নায়, তো কখনও রোগ সারাতে কাজে লাগে। ত্বকের জন্য উপকারি রসুন। প্রতিদিন রসুন খেলে ত্বকের ক্ষতিগ্রস্ত কোশগুলি আগের অবস্থায় ফিরে আসে। তাছাড়া, রসুনে থাকা সালফার ত্বককে ভিতর থেকে পুষ্টি জুগিয়ে করে তোলে প্রাণবন্ত।

টোম্যাটো
সূর্যরশ্মি ত্বকের জন্য খুব ক্ষতিকারক। টোম্যাটো এই ক্ষতির হাত থেকে ত্বককে রক্ষা করে। টোম্যাটোয় থাকা একরকম অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ত্বকে সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মির কারণে ক্ষতির সম্ভাবনা অনেক কমায়।

পালং শাক
শীতকালে অনেকেরই ত্বক শুকিয়ে চামড়া উঠতে শুরু করে। এর কারণ ভিটামিন-A-এর অভাব। পালংয়ের মতো সবুজ শাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-A থাকে। যা ত্বকের শুষ্কভাব দূর করে ত্বককে করে তোলে কোমল।

কলা
কলা শরীরের জন্য খুব উপকারি। ত্বকের যত্নেও এই ফল কাজ দেয়। কলা খেলে ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বৃদ্ধি পায়। কলায় থাকে ভিটামিন-B-6 ও ভিটামিন-C। যা ত্বককে ভিতর থেকে আর্দ্রতা জুগিয়ে কোমল ও মসৃণ হয়ে উঠতে সাহায্য করে

Check Also

দুই খলনায়কের ফাঁসি কবে

নিজস্ব প্রতিবেদক; আজ ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস। জাতির ইতিহাসে বেদনাদায়ক একটি দিন। ১৯৭১ সালের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *